এন্ড্রয়েড স্মার্টফোনের Ram, Processor এর সাথে Gaming এর সম্পর্ক

এন্ড্রয়েড স্মার্টফোনের Ram, Processor এর সাথে Gaming এর সম্পর্ক 


আমরা প্রায়ই দেখে থাকি পেজে কিংবা অন্য কোথাও ফোনের স্পেসিফিকেশন পোস্ট করলে অনেকেই কমেন্টে  বিভিন্ন কথা বলেন ফোনের Gaming পারফর্মেন্স সম্পর্কে। তাই আপনাদের নিয়েই আজকের আমার এই পোস্ট।



আগে মন দিয়ে পুরো পোস্ট পড়ুন। বুঝুন। তারপর মন্তব্য করবেন।

আপনাদের যুক্তি হল ফোনের Ram ১ জিবি না হলে GTA Vice City, San Andress, MC3 সহ ভালো হাই
কোয়ালিটির গেম গুলো চলে না। আর ৫১২ এমবি হলে তো কথাই নেই।
আপনাদের কাছে একটা প্রশ্ন! গেম কি শুধু মাত্র র‍্যাম এর উপর ভর করে চলে??
উওরঃ না।

ভালো মানের গেমিং এর অভিজ্ঞতা পাওয়ার জন্য বেশি পরিমান র‌্যাম এর সাথে ভালো মানের শক্তিশালী প্রসেসর ও থাকতে হয়।

যখন প্রসেসর আর র‌্যাম এর কম্বিনেশন ঠিক থাকবে ঠিক তখনই গেম কোন প্রকার ল্যাগ বিহীন অবস্থায় চলবে।আর সাথে থাকতে হয় জিপিইউ।
এখন প্রশ্ন হল সর্বনিম্ন কত টুকু র‌্যাম আর প্রসেসর হলে গেম ঠিক মত চলবে আর কত টুকু হলে বেশ ভালো ভাবে চলবে?

সিংগেল কোর প্রসেসর

সিংগেল কোর প্রসেসর এর সাথে যদি ২৫৬ এমবি কিংবা ৫১২ এমবি র‌্যাম হয় তাহলেও কোন এইচডি গেমই ঠিক মত খেলতে পারবেন না। যদি ১ জিবি র‌্যামও হয় তবুও পারবেন না। সব ধরনের গেমই ল্যাগ করবে। (আমি Samsung Galaxy S এ ট্রাই করে দেখেছি।কোন গেম খেলেই শান্তি তো দূরে থাক ভালোও লাগে নাই। এই ফোনে কিন্তু ১ জিবি র‌্যাম। সমস্যা হল সিংগেল কোর প্রসেসর।)

ডুয়াল কোর প্রসেসর

ডুয়াল কোর Processor মূলত দুটি কোর এর প্রসেসর যেখানে কোন কাজ প্রসেসর প্যারালাল এ করে থাকে। যার কারনে সিংগেল কোর প্রসেসর এর চেয়ে বেশি শক্তি পাওয়া যায়।) আপনার ফোনের র‌্যাম যদি ৫১২ এমবি হয় আর যদি প্রসেসর ডুয়াল কোর হয় তাহলে আপনার ফোনে GTA Vice City, MC3 তে কোন প্রকার ল্যাগ বা হ্যাং পাবেন না। কিন্তু GTA San Andress, MC4, NOVA 3 বা এর চেয়ে হাই কোয়ালিটি গেম খেললে অবশ্যই ল্যাগ পাবেন। Asphalt 8 এ বেশ ভালোই ল্যাগ পাবেন। কিন্তু যদি ডুয়াল কোর প্রসেসর এর সাথে ১ জিবি র‌্যাম হয় তাহলে আপনার ফোনে প্রায় সব ধরনের গেমই ল্যাগ ছাড়া চলবে। Samsung Galaxy S2 তে পরীক্ষা করা।
(তবুও যদি আপনার ফোনে উপরিক্ত স্পেসিফিকেশন থাকার পরও গেম না চলে তাহলে আপনার গেম ডাউনলোডিং এ সমস্যা আছে)


কোয়াড কোর প্রসেসর

কোয়াড কোর প্রসেসর এর কোর সংখ্যা হল ৪ টি। যার কারনে ডুয়াল কোর প্রসেসর এর চেয়েও বেশি শক্তি উৎপন্ন করে। এখন আপনার ফোনে যদি কোয়াড কোর প্রসেসর এর সাথে ৫১২ এমবি র‌্যাম থাকে তাহলে আপনি প্রায় সব গেম ল্যাগ বিহীন অবস্থায় খেলতে পারবেন।যেমনঃ GTA VICE CITY, GTA SAN ANDRESS, NFS MOST WANTED, NFS HOT PARSUITE, ETC..
এই গেম গুলো এই প্রসেসর আর র‌্যাম এ পরিক্ষিত। আমি এই সব গেম Symphony W69Q এর ৫১২ র্যাম ভার্সন এ খেলেছি। তাই আমি এই কথা গুলো বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে বলছি। আর যদি আপনার ফোন কোয়াড কোর প্রসেসর আর ১ জিবি র্যাম হয় তাহলে তো লাইফ পুরা জিংগালালা। মানে এই ফোনে আপনি প্রায় সব ধরনের গেম কোন প্রকার ল্যাগ ছাড়াই খেলতে পারবেন। আমার primo Gm Mini তে টেস্ট করা। যেমনঃ san andress, NOVA 3, MC4, MC5, Backstab HD



হেক্সা কোর এবং অক্টাকোর

এই সব প্রসেসরের ফোন গুলোতে গেমিং এ কোন সমস্যা থাকে না। অক্টাকোর প্রসেসর এর ফোন কিনলে আপনাকে আর গেমিং পার্ফমেন্স নিয়ে চিন্তা করতে হবে না।এই প্রসেসর গুলো মূলত গেমিং এর জন্য পারফেক্ট। তারপরেও যদি কোন সমস্যা হয় গেমিং এ তাহলে আমাদের অফিশিয়াল গ্রুপে পোস্ট করতে পারেন।
আরও একটি কথা। আমি যে সব প্রসেসর আর র‌্যাম সম্পর্কে বললাম তার সাথে অবশ্যই জিপিইউ হিসেবে Mali-400-mp অথবা এর চেয়ে ভালো জিপিইউ থাকতে হবে।



কিছু কমন প্রশ্ন

  • আমার ফোনের প্রসেসর কি?এটা কিভাবে বের করব??
    উওরঃ CpuZ.apk নামিয়ে নিয়ে দেখুন।
  • আমার ফোনে গেম ওপেন করে কিছুক্ষন খেলার পর গেম থেকে বের হয়ে যায়??
    উওরঃ ফোন রিসেট করেন তাহলেই ঠিক হবে।
আর হ্যা রুটেড ইউজাররা কিছু টুইক ব্যাবহার করে কিছুটা হলেও ফোনের গেমিং পার্ফমেন্স বাড়াতে পারবেন। এর জন্য আমাদের গ্রুপে পোস্ট করুন।আমাদের এডমিনরা আপনাদের হেল্প করবে। 

আর অন্য যে কোন রকম সমস্যায় পড়লে অবশ্যই

আশা করি আপনাদের ভাল লেগেছে…।
ধন্যবাদ সবাইকে…

সবাই ভালো থাকবেন ধন্যবাদ
আমার সাইট ভিজিট কারার অনুরুধ রইল।
আমার ফেসবুক : Sadikur Rahman Mejan

যেভাবে আপনার পেনড্রাইভ বুটেবল করবেন!

যেভাবে আপনার পেনড্রাইভ বুটেবল করবেন!


    প্রথমেই জানা দরকার বুটেবল কি?

    আপনি যখন উইন্ডোসের কোনো সিডি পিসিতে প্রবেশ করান তথন সেই সিডির মাধ্যমে আপনি উইন্ডোস দিয়ে থাকেন। কারন ওই সিডিতে .iso ইমেজ টা বার্ন করা থাকে ফলে আপনি উইন্ডোস সেটাপ করতে সক্ষম হন। ঠিক তেমনি আপনার কাছে কোনো সিডি না থাকলে আপনি আপনার পেনড্রাইভের মাধ্যমে উইন্ডোস বা যেকোনো অপারেটিং সিস্টেম ইনষ্টল করতে পারবেন। আর পেনড্রাইভ দিয়ে অপারেটিং সিস্টেম ইনষ্টল করতে হলে আপনাকে প্রথমে পেনড্রাইভ টিকে বুটেবল করতে হবে।

    পেনড্রাইভ বুটেবল করতে যা যা লাগবে-

    • বলার দরকার নেই যে প্রথমেই আপনার একটি পেনড্রাইভ লাগবে :p
    • ৮ জিবি বা তার বেশি ধারন ক্ষমতা সম্পন্ন পেনড্রাইভ হতে হবে!
    • উইন্ডোস ৭/৮/১০ চালিত একটি পিসি
    • অপারেটিং সিস্টেম এর .iso ফাইল।
    • একটি সফ্টওয়্যার
    • কিছু মেগাবাইট এবং কিছু সময় :

    যেভাবে বুটেবল করবেন-

    • প্রথমেই এখান থেকে PowerISO সফ্টওয়্যার টি নামিয়ে ইনষ্টল করে নিন।
    • এবারে এ্যপটি ওপেন করুন।
    • ৫ সেকেন্ড অপেক্ষা করার পরে Continue Unregistered এ ক্লিক করুন।
    • এবারে পেনড্রাইভ টি পিসিতে প্রবেশ করান। ফরম্যাট দিন। (নিচের ছবি গুলো দেখুন)


    how-to-bootable-your-pendrive
    • এবারে Tools এ যান। তারপর Create Bootable USB Drive এ ক্লিক করুন।


    how-to-bootable-your-pendrive
    • OK দিন।


    how-to-bootable-your-pendrive
    • এবারে আপনাকে .iso ফাইল টি সিলেক্ট করতে হবে।


    how-to-bootable-your-pendrive

    • Write Method দিবেন USB- HDD. তারপর স্টার্ট দিন।


    how-to-bootable-your-pendrive
    • নিচের ছবির মত কিছু দেখালে ওকে করুন।


    • সব কিছু ঠিক ঠাক হলে বুটেবল হওয়া শুরু হবে ১০-১৫ মিনিটের মত সময় লাগবে।


    how-to-bootable-your-pendrive
    • বুটেবল হয়ে গেলে ওকে দিন।


    how-to-bootable-your-pendrive
    বুটেবল তো করে ফেললেন এবার ওএস ইনষ্টল করবেন কিভাবে
    ?? :/
    • এবারে পিসি টি রিস্টার্ট করুন।
    how-to-bootable-your-pendrive

    • রিস্টার্ট করার সময় কিবোর্ডের F12 বাটন টি চাপুন।
    how-to-bootable-your-pendrive

    • বুট ডিভাইস হিসেবে পেনড্রাইভ সিলেক্ট করুন।
    how-to-bootable-your-pendrive

    • তারপর ওএস ইনষ্টল করার নিয়ম অনুযায়ি ইনষ্টল করুন।
    অনেক সময় F12 প্রেস করার পরে কোনো ডিভাইস সো করে না, তখন
    • বায়োসে যেয়ে বুট ডিভাইস হিসেবে Removable সিলেক্ট করুন।
    • প্রাইমারি বুট হিসেবে Removable সিলেক্ট করুন।
    • তারপর সেইভ করে বেরিয়ে আসুন।

    বিদ্র: সব Motherboard এর সিস্টেম এক না। সেজন্য আপনি গুগল করে নিতে পারেন :)

    আশা করি আপনাদের ভাল লেগেছে…।
    ধন্যবাদ সবাইকে…
    সবাই ভালো থাকবেন ধন্যবাদ
    আমার সাইট ভিজিট কারার অনুরুধ রইল।
    আমার ফেসবুক : Sadikur Rahman Mejan

পিসি ছাড়াই CTR (Carliv Touch Recovery) তৈরী বা পোর্ট করুন android দিয়ে ।

পিসি ছাড়াই CTR (Carliv Touch Recovery) তৈরী বা পোর্ট করুন




অনেক সময় বহু খোঁজার পরও ফোনের কাস্টম রিকভারি পাওয়া সম্ভব হয় না। তখন ফোন রুট করতে একটু দিধার মধ্যে পড়ে যেতে হয়। কেননা কাস্টম রিকভারি না পেলে রুট করার পর রমের ব্যাকাপ করতে সমস্যা হয়। অনেকে খুঁজে Custom Recovery না পেলে কিভাবে নিজেই CTR (Carliv Touch Recovery) Port করতে হয়, তাই নিয়ে আজকের এই পোষ্ট।




যা যা দরকার:-

(1) Rooted Android;
(কিভাবে রুট করবেন, তা আপনার ব্যাপার) :
(2) BusyBox Pro;
(গুগল থেকে ডাউনলোড করে নিন) :
(3) Apktool;
http://­code.google.com/p/­apktool (Size:50MB+)
:
(4) Root Explorer
http://adf.ly/1VVgWL

(5) Stock Recovery.img ও boot.img;
(স্টক রমের ভিতরে পাবেন।)
:
(6) CTR Sample Recovery.img
(নিচের example হতে আপনার ফোনের রেজুলেশন অনুযায়ী CTR Sample ডাউনলোড করে নিন net থেকে।) :
Resolution:--> 240*240

Resolution:--> 320*480

Resolution:--> 480*800 

Resolution:--> 480*854

Resolution:--> 540*960 

Resolution:--> 600*1024

Resolution:--> 720*1280 

Resolution:--> 768*1024

Resolution:--> 768*1280

Resolution:--> 800*1200

Resolution:--> 800*1280 

Resolution:--> 1024*600 

Resolution:--> 1280*1920 

Resolution:--> 1280*720 

Resolution:--> 1280*768

এই রকম resulation অনুযায়ী আপনি নেট থেকে download করে নিন

কাজের ধাপসমুহ:-
ধাপঃ-(১) প্রথমে BusyBox Install করে Open করুন। Root Permission চাইলে Grant করুন এবং এর ভিতর থেকে Install এ ক্লিক করে Normal Install এ ক্লিক করে কাজটি শেষ না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

ধাপঃ-(২) এবার ApKTool ডাউনলোড করে এর Zip ফাইলটি Extract করে মেমোরির হোম ডিরেক্টরিতে রাখুন (কোন ফোল্ডারে নয়)। Extract হলে ApKTool নামে একটি ফোল্ডার পাবেন, সেখান থেকে ApKTools.apk install করুন। এই ফোল্ডার থেকে আর কোন ফাইল ডিলেট বা টাচ করবেন না।

ধাপঃ-(৩) এবার Apktool ওপেন করে Root Permission চাইলে Grant করুন।

ধাপঃ-(৪) এবার আপনার ডাউনলোড করা CTR Sample রিকভারি ইমেজের নাম পরিবর্তন করে শুধু recovery.img করুন।

ধাপঃ-(৫) Root Explorer ওপেন করুন। RW তে ক্লিক করুন এবং Root Permission চাইলে Grant করুন। এরপর Cache ফোল্ডারে প্রবেশ করুন এখানে দুটো ফোল্ডার পাবেন lost+found এবং recovery এইগুলো ডিলেট করুন। (যদি ডিলেট না হয় দুটো ফোল্ডারকে মাল্টি সিলেক্ট করে Permission: RW-R-R করে দিন)।

ধাপঃ-(৬) এবার cache ফোল্ডারে Ported Recovery নামে একটি, Boot নামে একটি এবং Stock Recovery নামে একটি ফোল্ডার তৈরি করুন। (মোট তিনটি ফোল্ডার হবে)।

ধাপঃ-(৭) এবার মেমরি কার্ডে থাকা boot.img টা device/cache/Boot ফোল্ডারে পেস্ট করুন।

ধাপঃ-(৮) এবার CTR Simple recovery.img টা কপি করে device/cache/Ported Recovery ফোল্ডার এ পেস্ট করুন। (রিকভরি ইমেজটির নামঃ recovery.img হবে)।

ধাপঃ-(৯) এবার ফোনের স্টক রিকভারি recovery.img টা কপি করে
device /cache/Stock Recovery ফোল্ডারে পেস্ট করুন। (রিকভরি ইমেজটির নামঃ recovery.img হবে।)

ধাপঃ-(১০) এবার apktool ওপেন করুন cache ফোল্ডারের ওপর কয়েক সেকেন্ড টাচ করে ধরে রাখুন এবং get acces permission (need root) এ ক্লিক করুন।

ধাপঃ-(১১) এবার Boot ফোল্ডার হতেও একইভাবে "get acces permission (need root) এ ক্লিক করুন। এবং ওপেন করুন। boot.img তে ক্লিক করুন এবং expack-mt65xx (need root) এ ক্লিক করুন এবার boot.img এক্সট্রাক্ট হবে। এক্সট্রাক্টিং কম্পলিট হলে 1249+1 record in 1249+1 record out এবং 3068 blocks বা জাতিয় কিছু লেখা আসবে।
এক্সট্রাক্ট হলেঃ
kernel নামে ফাইল;
ramdisk.cpio.gz নামে ফাইল এবং;
ramdisk নামে একট ফোল্ড

ধাপঃ-(১২) ঠিক ওই ভাবে get acces permission নিয়ে device/cache/Ported Recovery থেকে recovery.img এক্সট্রাক্ট করুন।
ধাপঃ-(১৩) এইভাবে device/cache/Stock Recovery থেকে recovery.img এক্সট্রাক্ট করুন।

ধাপঃ-(১৪) এখন Root Explorer দিয়ে- Ported Recovery ফোল্ডার থেকে ramdisk ফোল্ডারে গিয়েঃ
meta_init.rc
meta_init.modem.rc
meta_init.project.rc
fstab
uventd.rc
uventd.goldfish.rc


এই ফাইলগুলো ডিলিট করুন।

ধাপঃ-(১৫) এবার Boot ফোল্ডারের ramdisk ফোল্ডারে গিয়েঃ
meta_init.modem.rc
meta_init.project.rc
meta_init.rc
এই ফাইলগুলো কপি করে Ported Recovery এর ramdisk ফোল্ডারে পেস্ট করুন।

ধাপঃ-(১৬) এবার Stock Recovery ফোল্ডারের ramdisk ফোল্ডার হতেঃ-
fstab
ueventd.rc
ueventd.goldfish.rc
এই ফাইলগুলা কপি করে Ported Recovery এর ramdisk ফোল্ডারে পেস্ট করুন।

ধাপঃ-(১৭) এবার Stock Recovery ফোল্ডার হতে kernel ফাইলটি কপি করে Ported Recovery ফোল্ডারে পেস্ট & ওভাররাইট করুন।

ধাপঃ-(১৮) এবার device/cache ফোল্ডার হতে Stock Recovery এবং Boot ফোল্ডার টি ডিলেট করুন।

ধাপঃ-(১৯) এবার আবার apktool ওপেন করে device/ cache/Ported Recovery এ যান। এবার ramdisk ফোল্ডারে ক্লিক করুন এবং "repack-mt65xx(need root)" এ ক্লিক করুন। ফলে লোডিং হবে এবং OK লেখা আসবে। ব্যস কাজ শেষ।

ধাপঃ-(২০) এবার Root Explorer দিয়ে- device/cache/Poted Recovery হতে new.img কপি করে SDCard এর হোম ডিরেক্টরিতে রাখুন এবং recovery.img নামে রিনেম করে Flashify বা MobileUnle Tool এর সাহায্যে ফ্ল্যাশ করুন।






















আশা করি সবাই উপকূত হবেন.

 শেষকথা:- সকল প্রকার কাজ নিজ দ্বায়িত্বে করবেন কোন প্রকার ক্ষতির জন্য আমি বা সাইট দায়ী থাকবে না

post কপি-পেষ্ট করলে অবশ্যই আদার্শ মানুষের মত blog এর addres টি পোষ্টের সাথে শেয়ার করবেন



আশা করি আপনাদের ভাল লেগেছে...।
ধন্যবাদ সবাইকে...
সবাই ভালো থাকবেন ধন্যবাদ
আমার সাইট ভিজিট কারার অনুরুধ রইল।
আমার ফেসবুক : Sadikur Rahman Mejan

itel s11 plus flash file MT6580 V6.0 100% tested by

itel s11 plus  V7.0 100% Tested file
MT6580__Itel__itel_S11Plus__S11Plus__6.0__alps-mp-m0.mp1-V2.39_rlk6580.we.i.m_P48
info
Brand     : Itel
ProdName  : S11Plus
ProdModel : itel S11Plus
Device    : S11Plus
AndroidVer: 6.0
MTKxCPU   : MT6580
MTKxPRJ   : alps-mp-m0.mp1-V2.39_rlk6580.we.i.m_P48
[Read Ok] : preloader_rlk6580_we_i_m.bin
[ScatCFG] : MT6580 / V1.1.2 / rlk6580_we_i_m / EMMC
Android Info saved
MAUI Meta DB saved
HWConfig Info saved
FW Size : 2797 MiB
Scatter saved to : J:\itel\S11 ok\CM2\MT6580__Itel__itel_S11Plus__S11Plus__6.0__alps-mp-m0.mp1-V2.39_rlk6580.we.i.m_P48\
MT6580_EMMC_Itel_itel S11Plus_6_0_alps-mp-m0_mp1-V2_39_rlk6580_we_i_m_P48(2017_08_13_22_54)
general: MTK_PLATFORM_CFG
  info:
    - config_version: V1.1.2
      platform: MT6580
      project: rlk6580_we_i_m
      storage: EMMC
      boot_channel: MSDC_0
      block_size: 0x20000

MT6580__Itel__itel_S11Plus__S11Plu V6.0 100% Tested file

FIASH FILE.1.12GB


ALL:iTEL MOViE FIASH FILE

FOR 
CLLO
MOVILE ME: 01643285182

WINMAX TIGER X4 FLASH FILE Firmware MT6580 5.1 Hang Logo Fix Stock Rom

MT6580__WINMAX__TIGER_X4__TIGER_X4__5.1__ALPS.L1.MP6.V2_KEYTAK6580.WEG.L_P22

WINMAX TIGER X4 Hang On Logo & Dead Recovery Firmware


MT6580__WINMAX__TIGER_X4__TIGER_X4__7.0__alps-mp-n0.mp2-

V1_keytak6580.weg.n_P24

WINMAX TIGER X4 V7.0 100% Tested file

WINMAX TIGER X4 Flash File
WINMAX TIGER X4 Firmware
WINMAX TIGER X4 Stock Rom

WINMAX TIGER X4 Flash File, WINMAX TIGER X4 Firmware Download, WINMAX TIGER X4 Frp Solved, WINMAX TIGER X4 Dead Recovery Done, WINMAX TIGER X4 Lcd Blank Fix, WINMAX TIGER X4 Hang On Logo Fix, WINMAX TIGER X4 Hang Logo, WINMAX TIGER X4 Flashing Error Fix, WINMAX TIGER X4 Camera Fix, WINMAX TIGER X4 Monkey Virus Clean 100% Tested.

MT6580__WINMAX__TIGER_X4__TIGER_X4__5.1__ALPS.L1.MP6.V2_KEYTAK6580.WEG.L_P22


Device Brand   : WINMAX
Device Model   : TIGER_X4
Device CPU     : MT6580
Device IntName : TIGER_X4
Device Version : 7.0
Device Compile : 12/27/2017 1:41:51 AM
Device Project : alps-mp-n0.mp2-V1_keytak6580.weg.n_P24
Device ExtInfo : TIGER X4

MT6580__WINMAX__TIGER_X4__TIGER_X4__7.0__alps-mp-n0.mp2-V1_keytak6580.weg.n_P24

FIASH FILE.Size: 1.1 GB


ALL:iTEL MOViE FIASH FILE

FOR 
CLLO

MOVILE ME: 01643285182

Zorex-Theme Blogger Premium Template !

Zorex-Theme Blogger Premium Template

আস্সালামুআলাইুম...
হ্যালো বন্ধুরা !
আমি ছাদিকুর রহমান, আজ আমি আপনাদের সামনে এমন একটি প্রিমিয়াম থীম নিয়ে হাজির হলাম।
থিমটি সম্পূর্ণ Responsive থীম।
👉আর অবশ্য এই থীমটি আমি আপনাদেরকে ফ্রীতে দিচ্ছি না। এটা আপনারা টাকা দিয়া কিনতে হবে?
এর জন্য আমার ফেসবুক এ টেক্সট করেন?

  🔸🔸🔸থিমটির পরিচয়:🔸🔸🔸
থিমটির নামঃ- Zorex-Theme Blogger Premium Template
বর্তমান সংস্করণ: V2.3
ডিজাইনারঃ Sadikur Rahman

থীম ছবিঃ-





টেমপ্লেট বৈশিষ্ট্য:-


  • Responsive.
  • SEO Friendly.
  • Mobile Friendly.
  • Fast Load.
  • Homepage Grid.
  • Personal Blog.
  • Magazine.
  • Footer Menu.
  • 3 Column.
  • Social Share Button.
  • Free Templates.
  • Homepage Look Like Zorex Blog.

কিভাবে টেম্পলেট ইনস্টল করবেন?



  • Download the Zorex Theme Redesign Blogger Template .

  • Extract the file.

  • Open the extracted Template File earlier.

  • Open the blogger dashboard page.

  • Select the Themes / Template menu »then click the Backup / Restore button» Click Select File.

  • Enter the extract file from the XML format »then click upload.

  • Done.

  • For the demo, please see  this page .

  • If the link is dead, inform the admin through the comments column.




কিনতে টেক্সট করুন


আশা করি আপনাদের ভাল লেগেছে...।
ধন্যবাদ সবাইকে...
সবাই ভালো থাকবেন ধন্যবাদ
আমার সাইট ভিজিট কারার অনুরুধ রইল।
আমার ফেসবুক : Sadikur Rahman Mejan

Total Pageviews

Designed by Sadikur Rahman

Powered by Blogger